সারাদেশ

আক্কেলপুরে গৃহবধূর চুল কেটে নির্যাতন: আটক ৩

নিশাত আনজুমান, আক্কেলপুর (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি: জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে যৌতুকের দাবিতে হাত-পা বেঁধে গৃহবধূর মাথার চুল কেটে ঘরে আটকে রেখে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ স্বামী, ভাসুর ও শ্বশুরকে আটক করেছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালে বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার তিলকপুর ইউনিয়নের করমজি গ্রামের আবুল কালাম আজাদের ছেলে রুহুল আমিনের সাথে একই উপজেলার পৌওতাঁ সজ্জনকুড়ি গ্রামের মাহতাব হোসেনের মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকেই গৃহবধূর শাশুড়ি, শ্বশুর, ভাসুর ও স্বামী মিলিয়ে বাবার বাড়ি থেকে যৌতুক আনার জন্য চাপ দেন। স্বামীর সংসার টিকে রাখার জন্য গরিব বাবার বাড়ি থেকে দফায় দফায় টাকা এনে শাশুড়ি ও শ্বশুরের হাতে তুলে দিয়েছেন গৃহবধূ।

১০ অক্টোবর শনিবার আবারও বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা আনতে চাপ সৃষ্টি করলে গৃহবধূ বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকার জন্য যেতে আপত্তি করেন। আর এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শাশুড়ি নাজমা (৫২), শ্বশুর আবুল কালাম আজাদ ওরফে বুলু (৬০), ভাসুর শাহিন (৩৫) ও স্বামী রুহুল আমিন (৩০) গৃহবধূর হাত-পাঁ বেঁধে মাথার চুল কেটে একটি ঘরে আবদ্ধ করে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করেন।

পরে খবর পেয়ে ১৮ অক্টোবর নির্যাতনের শিকার গৃহবধূর বাবা-মাসহ কয়েকজন স্বজন জামাইয়ের বাড়িতে গিয়ে দেখেন—তার মেয়ের মাথার চুল কাটা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন। এ ঘটনা তাদের জামাইয়ের কাছে জানতে চাইলে তাদেরকেও মারপিট করেন ওই পরিবারে লোকজন। ওই দিন গ্রামবাসীর সহায়তায় নির্যাতিতাকে উদ্ধার করে দুপচাঁচিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। গৃহবধূ কিছুটা সুস্থ হলে তার মা বাদী হয়ে ১৯ অক্টোবর আক্কেলপুর থানায় মামলা করেন।

এ বিষয়ে আক্কেলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল লতিফ খাঁন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত স্বামী, শ্বশুর ও ভাসুরকে আটক করা হয়েছে। #

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker