Featured

আসন্ন পৌর নির্বাচন জলঢাকা আঃলীগের দলীয় সমর্থনে আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2015/11/Copy-3-of-Jol..-2.jpgবিশেষ প্রতিনিধি :  পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় সমর্থন পেতে নীলফামারীর জলঢাকায় তোড়জোড় শুরু করেছে দলীয় নেতারা। ইতিমধ্যে দলের সিনিয়র নেতাদের সাথে নানাভাবে যোগাযোগে ব্যস্ত সময় পার করছে মেয়র প্রার্থীরা। বর্তমানে জলঢাকার পৌর মেয়র জাতীয়পার্টির নেতা ইলিয়াছ হোসেন বাবলু জাপা ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগদানের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের হয়ে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন পেতে চান। কিন্তু এতে বাধ সেজেছে আওয়ামী লীগের পাল্লাভারী নেতাকর্মীরা। তাদের দাবি যারা দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের কান্ডারী এবং এলাকার জনপ্রিয়তা রয়েছে তাদের মধ্যেই দলীয় মনোনয়ন দিতে হবে। আর এ জন্য শুক্রবার ( ৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের দলীয় মেয়র প্রার্থীর সমর্থনে জলঢাকা পৌর এলাকার ৯ টি ওয়াডের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী সহ সাধারন মানুষজন সমবেত হয়েছিল থানার মোড় আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুরের সমর্থনে মতবিনিময় সভায়। আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির  নির্বাহী সদস্য এবং জলঢাকা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান।
আব্দুল গফুরের সভাপতিত্বে ওই মতবিনিময় সভায় উপস্থিত সকলে একবাক্যে আসন্ন পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসাবে আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর কে মনোনয়ন প্রদানের দাবি করেছে। এ সময় উপস্থিতের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সোনা মিয়া,সিদ্দিক,সফিকুল,শাহজাহান,মজিবর রহমান,আবুল কালাম আজাদ গোলাম কিবরিয়া সহ প্রমুখ। বক্তারা দলের ত্যাগী নেতা হিসাবে আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর কে আখ্যায়িত করে মেয়র পদে মনোনয়নের দাবি তুলেন। পাশাপাশি বক্তারা বলেন কোন সুবিধাবাদী বহিরাগত ভিন্ন দলের নেতাকে আঃলীগের দলীয় মনোনয়ন যাতে দেয়া না হয়।
এ সময় আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর বলেন জলঢাকার আওয়ামী লীগ সহ তার সকল অঙ্গসগঠনের সকল নেতাকর্মী ও সাধারন পৌরবাসীরা তাকে আঃলীগের মেয়র পদে প্রার্থী হিসাবে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন বলেই তিনি দলের কাছে মনোনয়ন চাইবেন। দল থেকে মনোনয়ন পেলে জয় লাভের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী তিনি। তার এই মতের সাথে উপস্থিত মতবিনিময় সভায় সকলেই সমর্থন দিয়ে উঠেন।
তাজু নামের এক দলীয় নেতা বলেন নতুন ধারার দলীয় প্রতিকের নির্বাচন নিয়ে প্রতিটি দলের মধ্যে উঠেছে নানা রকম আলোচনার ঝড়। স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দলীয় প্রতিকে নির্বাচনের ঘোষনায় অন্যান্য সময়ের তুলনায় দলগতভাবে নির্বাচনে দলীয় লোকদের আগ্রহটা অন্যান্য সময়ের চেয়ে বেশী। দলের একজন ত্যাগী ও নির্যাতিত নেতা  হিসেবে আব্দুর ওয়াহেদ বাহাদুর রাজপথে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছে। দলের দুঃসময়ে প্রতিটি মুহুর্তে রাজপথে অতন্দ্র প্রহরী ছিলেন। রাজনীতি ছাড়াও সমাজের উন্নয়নে একজন নিবেদিত কর্মী হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন বাহাদুর। আমরা সকলে তাকে সমর্থন করি। আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুরের মাধ্যমে জলঢাকা পৌরসভার পুঞ্জিভুত সমস্যা আমরা দুর করতে চাই।
এদিকে অন্যান্য দলের মধ্যে বিএনপির পক্ষে মেয়র পদে ফাহমিদ  ফয়সাল কমেট , জাসদ (ইনু) অধ্যাপক আজিজুল ইসলামের নাম শোনা যাচ্ছে। জামায়াতের পক্ষে দলীয় পরিচয়ে নির্বাচনে অংশ না নিয়ে সতন্ত্র প্রার্থী কে হচ্ছে তা এখনও প্রকাশ পায়নি।
অপর দিকে বর্তমান মেয়র ইলিয়াস হোসেন বাবলু জাতীয় পাটি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগদানের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের প্রতিকে পুনরায় নির্বাচনে প্রার্থী হতে চাইছেন । এ জন্য তিনি বিভিন্ন স্থানে দৌড়ঝাপ করছেন বলে বিভিন্ন সুত্র জানায়। তবে জলঢাকার একাধিক জন জানায় ইলিয়াছ হোসেন বাবলু পারিবারিক সর্ম্পকে  আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুরের আপন মামা। গত নির্বাচনে জলঢাকায় আওয়ামী লীগ মেয়র পদে কোন প্রার্থী না দিয়ে জাতীয় পাটির ইলিয়াছ হোসেন বাবলুকে সমর্থন দিয়ে মেয়র নির্বাচন করেছিল। সে সময় ইলিয়াছ হোসেন বাবুল বিভিন্ন জনসভা বলেছিলেন আগামীতে তিনি আর নির্বাচন  করবেন না। পরবর্তি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হবেন আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর।

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close