ওপারবাংলা

ওপার বাংলার শিলিগুড়ি শহরে বন্য হাতির তাণ্ডব!

ওপার বাংলার শিলিগুড়ি শহরে বন্য হাতির তাণ্ডব!তিস্তা নিউজ ওয়েব ডেস্ক: ওপার বাংলার শিলিগুড়ি শহরের বুকে দলছুট বন্য হাতির ঘণ্টার পর ঘণ্টা তাণ্ডবে হুলস্থুল৷ এর আগে মহানন্দা অভয়ারণ্য কিংবা বৈকুণ্ঠপুর জঙ্গল থেকে হাতি বেরলেও খোদ শিলিগুড়ি শহরের বুকে বন্য হাতির এ ধরনের তাণ্ডব এই প্রথম দেখল শহরবাসী৷ শুধু তাই নয়, ওই দলছুট বন্য হাতি শহরের অন্যতম ব্যস্ত রাস্তা সেবক রোড দখল করে নেওয়ায় কার্যত স্তব্ধ হয়ে গেল শিলিগুড়ি৷ হাতি দেখতে রাস্তায় কয়েক হাজার মানুষের ভিড় উপচে পড়ে৷ সঙ্গে মোবাইলে ছবি তোলার হিড়িক৷ বন্ধ হয়ে যায় যান চলাচল৷ উৎসাহী মানুষের ভিড় হঠাতে হিমশিম খেতে হয় পুলিশকে৷
প্রথমে পটকা ফাটিয়েও কাজ না হওয়ায় শহরে ঢুকে পড়া দলছুট ওই বন্য হাতিকে শায়েস্তা করতে পর পর দু’টি ঘুমপাড়ানি গুলি ছোড়েন বনকর্মীরা৷ তাতেও বাগে আসার পরিবর্তে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে হাতিটি৷ বাড়িঘর, দোকানপাট ভাঙতে শুরু করে দেয় সে৷ মহানন্দা ও বৈকুণ্ঠপুর বন বিভাগের কর্মীদের পাশাপাশি সুকনা এলিফ্যাণ্ট স্কোয়াডের কর্মীরা ঘটনাস্থলে থাকলেও দুপুর পর্যন্ত উন্মত্ত হাতিটিকে শিলিগুড়ি শহর থেকে বের করা যায়নি৷ এদিকে, কীভাবে আচমকা দলছুট ওই হাতি শিলিগুড়ির লোকালয়ে ঢুকে পড়ল তা বুঝে উঠতে পারছেন না বনকর্মীরা৷
বৈকুণ্ঠপুর জঙ্গল থেকে বেরিয়ে বুধবার ভোর পাঁচটা নাগাদ পূর্ণবয়স্ক একটি হাতি ঢুকে পড়ে শিলিগুড়ির ইস্টার্ন বাইপাস এলাকায়৷ এর পর একতিয়াশাল, ঠাকুরপল্লি, পূর্ব চয়নপাড়া, নরেশপুর, গৌরাঙ্গপল্লি, ইসকন মন্দির রোড হয়ে ক্রমেই শহরের দিকে ধেয়ে আসে হাতিটি৷ সঙ্গে চালাতে থাকে বেপরোয়া তাণ্ডব৷ সাত-সকালে ঘুম থেকে উঠেই হাতির তাণ্ডব দেখে হকচকিয়ে যান এলাকার বাসিন্দারা৷ অনেকেই প্রাণভয়ে বাড়ি-ঘর ছেড়ে পালিয়ে যান৷ বনকর্মীরা আসার আগে শিলিগুড়ির ইস্টার্ন বাইপাস এলাকার বাসিন্দারা লাঠিসোটা নিয়ে হাতিটির পিছু ধাওয়া করে তাকে বৈকুণ্ঠপুর জঙ্গলের দিকে পাঠানোর চেষ্টা করেন৷ তাতে ফল হয় উল্টো৷
কিন্তু চারদিক থেকে মানুষজন তেড়ে আসায় রীতিমতো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে শহরে ঢোকার রাস্তা ধরে ছোটে ওই দলছুট হাতি৷ পথে প্রচুর দোকান, বাড়ি গুঁড়িয়ে দিয়ে সকাল দশটা নাগাদ উন্মত্ত দাঁতালটি সেবক রোডে চলে আসায় শহরজুড়ে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে৷ বহু লোকজন বাড়িঘর ছেড়ে পালান৷ বন্ধ হয়ে যায় একের পর এক দোকানের ঝাঁপ৷ সেবক রোডের ধারে একটি সিনেমা হলের পিছনে গিয়ে কিছুক্ষণ ঘাপটি মেরে দাঁড়িয়ে থাকার সময় বন কর্মীরা হাতিটিকে লক্ষ্য করে পর পর দু’টি ঘুমপাড়ানি গুলি করেন৷ ফের মেজাজে ফিরে তাণ্ডব শুরু করে দেয় সে৷ এবার একেবারে সেবক রোডে উঠে এসে দখল নিয়ে নেয় রাস্তার৷ আশপাশে বেশ কয়েকটি শপিংমল৷ প্রচুর দোকানপাট৷ আতঙ্কে তড়িঘড়ি ঝাঁপ বন্ধ হয়ে যায়৷ সাত ঘণ্টা তাণ্ডবের পর বেলা বারোটায় হাতিটির ঝিমুনিভাব দেখে ক্রেন নিয়ে আসেন বনকর্মীরা৷

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker