নীলফামারী

ডিমলায় থাকে “কে এই ইছাহাক মোল্লা “ যার বিরুদ্ধে নারী উত্যক্তসহ নানা অভিযোগ?

স্টাফ রিপোর্টার: কে এই সে ইছাহাক মোল্লা? যার বিরুদ্ধে নারী উত্যক্ত, গুপ্ত ধন পাইয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি, যাদু, টোনা, জ্বীন-ভুত তাড়োনাসহ নানা রোগ-ব্যাধি ভাল করে দেওয়ার নামে সাধারণ মানুষের কাছে প্রতারণার মাধ্যমে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

অভিযোগে জানাগেছে, প্রায় ৭/৮ মাস ধরে এই ইছাহাক মোল্লা(৬০) নীলফামারী ডিমলা উপজেলা সদরে পোস্ট অফিস মোড়ের ২ শ গজ উত্তরে জনৈক বানিজ উদ্দিনের পাকাবাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে একাই অবস্থান করে আসছে।

এ সময়ে মধ্যে সে বিভিন এলাকার কিছু চুঙ্গি খোর লোকের সাথে একটি সখ্যতা গড়ে। পরবর্তীতে ওই সব চুঙ্গি খোর লোকজনের সহায়তায় নিজেকে একজন পরহেজগার তান্ত্রিক কবিরাজ হিসাবে প্রচার করতে থাকে। যাদু, টোনা, জ্বীন-ভুত তাড়োনাসহ নানা রোগ-ব্যাধি ভাল করে দেওয়ার মিথ্যা প্রচারণায় প্রলুব্ধ হয়ে এলাকার অসংখ্য সহজ সরল মানুষ প্রত্যারণার শিকার হয়।
প্রাপ্ত তথ্য ও অভিযোগ মতে জানাগেছে, তেল পড়া,পানি পড়া ও তাবিজ-কবজ দিয়ে লোকজনের কাছ থেকে সে ইতোমধ্যে ১শ, ৫ শ, ১ হাজার, ২ হাজার, ৫ হাজার থেকে ১০ হাজার টাকা করে নিয়েছে। প্রাথমিক হিসাব মতে সে ইতো মধ্যে প্রায় দু’ লক্ষাধিকেরও উপরে টাকা প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নিয়েছে।

এছাড়া অনেক ব্যক্তিকে গুপ্তধন পাইয়ে দেয়ার কথা বলে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়ার ফন্দি আটতে থাকে।

অপর দিকে সে এলাকার একাধিক মেয়ের মোবাইল ফোন নম্বর সংগ্রহ করে বিভিন্ন সময়ে মেয়েদেরকে নানা ভাবে উত্যক্ত করে আসছিল।

অভিযোগের সত্যতা প্রসঙ্গে, সাকিব হাসান(২০) নামে এক কলেজ ছাত্র বলে, আমি বেশ কিছু দিন থেকে পায়ের ব্যাথায় ভুগছি, এমতাবস্থায় ডিমলা ব্র্যাক অফিসের সামনে আলতাব চাচার চা দোকানে আমাকে দেখতে পেয়ে ঐ হুজুর আমাকে বলে, তুমিতো অনেক দিন থেকে অসুস্থ তো চিন্তা করো না তুমি সুস্থ হয়ে যাবে কালকে আমার এখানে বোতলে পানি ও তেল নিয়ে আসবে। আমি তার কথায় বিশ্বাস করে পরেদিন বোতলে পানি ও তেল নিয়ে গেলে সে পড়ে দেয়। এতে কোন উপকার না হলে কয়েক দিন পরে তাকে বললে, সে বলে যে, তোমাকে তাবিজ দিতে হবে। এ জন্য দেড় হাজার টাকা নিয়ে আসবে। কাজ না হলে টাকা ফিরত দিব। মাথায় টুপি ও পরহেজগারী লেবাসে দুর্বল হয়ে আমি পরের দিন তাকে দেড় হাজার টাকা দেই। এ তাবিজেও কোন কাজ হয়নি। সে পর্যায় ক্রমে আমার কাছে ৬ হাজার টাকা ও একটি মোরগ নিয়েছে। অদ্যবধি আমার কোন উপকার হয়নি। মর্মে বিষয়টি আমি ডিমলা থানা পুলিশকে জানিয়েছি।

অপর দিকে ডিমলা পোস্ট মোড়ের সায়মা আক্তার (ছদ্ম নাম) নামে এক স্কুল ছাত্রি জানায়, ঐ লোকটি আমাকে খুব ডিস্টার্ব করে, তার কারণে আমি বাড়ি থেকে বের হতে পারি না।

লতা রানী ভূইমালী (ছদ্ম নাম) এক সন্তানে মা অভিযোগ করে বলে, লোকটি হঠাৎ একদিন পোস্ট মোড়ে আমাকে বলে তোমার নামে আমার একটি বোন আছে। তো তোমাকে বোন বলে ডাকলে কোন আপর্তি আছে কি? এর পরে কেমন করে আমার মোবাইল নং পেয়ে আমাকে প্রায়ই ফোন করে উত্যক্ত করে। আমি তার ফোন নম্বর ব্লাক লিস্টে রাখার পরেও অন্য নম্বর থেকে বিরক্ত করে। অবশেষে আমি আমার অভিভাবককে সাথে নিয়ে বিষয়টি ডিমলা থানা পুলিশের কাছে অভিযোগ করি।

জানাগেছে, এই ইছাহাক মোল্লা সার্বক্ষণিক পরহেজগার হুজুরের লেবাসে চলাফেরা করলেও প্রথম দিকে ২/১দিন মসজিদে নামাজ পড়তে দেখা গেলেও গেল ৫/৬ মাসে তাকে মসজিদে নামাজ পড়তে দেখা যায় না। এমনকি শুক্রবারের জুমার নামাজেও সে মসজিদে আসে না।

এমতাবস্থায় ডিমলা পোস্ট অফিস মোড়ে অবস্থিত বাইতুন নূর জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দের কাছে এলাকার অনেকেই বিষয়টি প্রকাশ করেন। এলাকার ভাবমুর্তি রক্ষাসহ প্রতারক ইছাহাক মোল্লার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য এলাকাবাসীর পক্ষে গত শনিবার (১৪ নভেম্বর’২০২০) ডিমলা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করে মসজিদ কমিটির নেতৃবৃন্দ।

পাশাপাশি স্থানিয় প্রেসক্লাবের সভাপতিসহ অন্যান্য সংবাদকর্মীকে বিষয়টি অবগত করা হয়।

এদিকে থানায় অভিযোগের কথা জানার পরপরই অভিযুক্ত ইছাহাক মোল্লা আত্মগোপনে চলে যায়।

অভিযোগের বিষয়ে ইছাহাক মোল্লার, ০১৭৭৪-৯৭৪৯৬৬ মোবাইল ফোনে কল করে মন্তব্য জানতে চাইলে পরে কথা বলবো বলে ফোনটি কেটে দেয়। এর পরে একাধিকবার কল করলেও সে ফোন ধরেনি।

ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম অভিযোগের বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানিয়েছেন।

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker