Featured

নওগাঁর রাণীনগর-আত্রাই আঞ্চলিক সড়ক এখন মৃত্যুর ফাঁদ

55গোলাপ খন্দকার নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর রাণীনগর উপজেলা সদর হতে আত্রাই গামী একমাত্র আঞ্চলিক সড়কের মাঝে ভাঙ্গা-চুরা, বড় বড় খানা-খন্দ আর ধুলাবালিতে ভরপুর। ফলে যাত্রীবাহী ছোট বড় যানবাহনসহ পণ্যবাহী ট্রাক জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে।

রাণীনগর উপজেলা সদর হতে আত্রাই যাওয়ার প্রধান সড়কের প্রায় ২২ কিলোমিটার রাস্তার বড় বড় গর্ত আর ভাঙ্গার কারণে বর্তমানে যাবাহন চলাচলের অনুপোযোগি হয়ে পড়েছে। প্রতিনিয়তই যাত্রী সাধারণের চলাচলের ক্ষেত্রে মারাত্বক ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। আর মাঝে মধ্যে ঘটেই চলেছে ছোট-বড় সড়ক দুর্ঘটনা, সড়কটি এখন মৃত্যুর ফাঁদে পরিনত হয়েছে। ভাঙ্গা-চুড়া সড়কের কয়েকজন ইট ভাটার মালিকরা তাদের ব্যবসার স্বার্থ হাসিলের জন্য ইট বোঝায় ভ্যান চলাচলের উপযোগী করতে খানা খন্দগুলি ভাঙ্গা ইট দিয়ে ভরাট না করে রাবিশ দিয়ে ভরাট করার কারণে যানবাহন চলাচলের সময় ধূলাবালিতে একাকার হওয়ায় সড়ক দিয়ে চলাচলকারি জনসাধারণের দূর্ভোগ পোহাতে হয়। আর এই জন্য এলাকাবাসি পাকা সড়ক না বলে ধূলাবালি খানা খন্দের সড়ক বলতেই বেশি স্বাচ্ছন্দবোধ করে। বেশ কিছুদিন ধরে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপ সড়কটি সংস্কার কিংবা পূনঃনির্মানের উদ্দ্যোগ গ্রহণ না করায় বর্ষাকালে পানি-কাঁদা কারণে জনজীবন আরো অতিষ্ট হয়ে উঠে। গত বন্যায় আত্রাই উপজেলার পূর্ব মিরাপুর নামক স্থানে এই সড়কটি ভেঙ্গে যাওয়ার প্রায় ৬মাস অতিবাহিত হলেও মেরামতের অভাবে এখন পর্যন্ত নওগাঁ জেলা সদরসহ এই দুই উপজেলার সরাসরি যোগাযোগ ব্যবস্থা এখনও পূনঃস্থাপন হয়নি। বর্ষা মৌসুমে দুই উপজেলার জনগণ নদী পথে চলাচল করলেও নব্যতা সংকটের কারণে নৌ চলাচল বন্ধ থাকায় অনেক কষ্টে হলেও অধিক পরিমান অর্থ ও সময় ব্যায় করে বাধ্য হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন প্রায় দেড় ল মানুষ এই সড়ক দিয়ে যাতায়াত করছে।     http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2016/01/56.jpg
জানাগেছে, আশির দশকের দিকে নওগাঁ জেলা সদরের সাথে এই এলাকাবাসির  সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে নওগাঁ-রাণীনগর-আত্রাই আঞ্চলিক এই সড়কের মাটির কাজের শুরুর মধ্যে দিয়ে পর্যায়ক্রমে কয়েক দফায় পাকাকরণ করা হয়। কিন্তু সময়ের বিবর্তনে সরকারের পালা বদলের সাথে সাথে সড়কটির যথাযথ রনাবিন ও মেরামতের কাজ হলেও বর্তমানে কর্তৃপরে নজরদারির অভাবে দীর্ঘ দিন যাবৎ সড়কটি পূনঃনির্মান না করায় খানা খন্দ আর উচুঁ নিচু গর্তে এ যেন এক দিন দিন মৃত্যুপুরি রুপ ধারণ করছে। রাণীনগর উপজেলার প্রেমতলী, ঘোষগ্রাম, ভবাণীপুর, কুজাইল, কাশিমপুর, এনায়েতপুরসহ বিভিন্ন গ্রামের লোকজন যে কোনো প্রয়োজনে উপজেলা প্রশাসন, থানা, স্কুল-কলেজ, হাসপাতালে যেতে চাইলে এই ভাঙ্গাচুড়া সড়কটিই একমাত্র ভরসা। লজ্জাজনক হলেও সত্য যে, বিশেষ করে গর্ভবতী মা-বোনদের মার্তৃকালিন স্বাস্থ্যসেবা নিতে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে আসা রোগীদের পথিমধ্যে অত্যাধিক ঝাকোনিতে সন্তান প্রসবের মত ঘটনাও ঘটেছে। উত্তরাঞ্চলের খাদ্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত নওগাঁ জেলার কয়েকটি থানার মধ্যে সবচে বেশি ধান উৎপাদন হয় এই দুই উপজেলায়, লোক সংখ্যার দিকেও প্রায় ৪লক্ষ জনসাধারণের বসবাস। অত্র এলাকাটি ধান চাষের জন্য বিখ্যাত হওয়ায় বাইপাস বিকল্প কোনো পথ না থাকায় প্রতিদিন প্রায় শতাধিক ধান চালসহ অন্যান্য পণ্য সামগ্রী পরিবহনের প্রধান ব্যস্ততম এই সড়ক দিয়ে প্রতিনিয়ত বড় বড় ট্রাক সহ অন্যান্য যানবাহন চলাচল করে। এতে করে রাস্তার এই সমস্যা দিন দিন আরও প্রকোট আকার ধারণ করছে। অচিরেই যদি এই সড়ক সংস্কারের কাজ করা না হয় তাহলে রাণীনগর-আত্রাই উপজেলার সেতু বন্ধনের ব্যস্ততম এই প্রধান আঞ্চলিক সড়কটি চলাচলের জন্য অনুপোযোগি হয়ে পড়বে বলে স্থানীয় বাসীরা আশংকা প্রকাশ করছে।

এব্যাপারে রাণীনগর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ ছনিয়া ইসলাম জানান, আমার বাড়ি উপজেলার এনায়েতপুর গ্রাম থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে রাণীনগর সদরে আমার দপ্তরে আসতে সড়কটি ভাঙ্গাচূড়া আর ধুলাবালির কারণে মারাতœক দূর্ভোগ পোহাতে হয় এমনকি একবার যাওয়া-আসা করলে শারিরীক ভাবে আমার খুব অসুবিধা হয়। কিন্তু বাস্তবতার কারণে সাধারণ জনগণ জীবন-জীবিকার তাগিদে এই সড়কটিই ব্যবহার করতে বাধ্য হয়। তার দাবি জন নিরাপত্তা ও স্বাভাবিক জীবন-যাপনের স্বর্তেই অনতিবিলম্বে এই সড়কটি সংস্কার কিংবা পুনঃনিমার্ণের জন্য স্থাণীয় সংসদ সদস্য সহ সংশ্লিষ্ট উদ্ধর্তন কৃর্তপক্ষের সু-নজর কামনা করছি।
নওগাঁর সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ হামিদুল হক জানান, শীঘ্রই নওগাঁ-রাণীনগর-আত্রাই সড়কটির মেরামত কাজ শুরু হবে। ইতিমধ্যেই টেন্ডার শেষে সকল প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করে ঠিকাদার নিয়োগ হয়েছে।   আগামী এক মাসের মধ্যেই কাজ শুরু করার নির্দেশনা  দেয়া হয়েছে।

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker