Featured

‘নেপাল মডেল’ : ৫ মিনিটে দৃষ্টিশক্তি!

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2015/11/9874.jpgতিস্তা নিউজ অনলাইন ডেস্ক : তিনি এক লাখের বেশি লোকের দৃষ্টিশক্তি ফিরিয়ে দিয়েছেন। সম্ভবত ইতিহাসে তিনিই সবচেয়ে বেশি লোকদের দৃষ্টিশক্তি এনে দেয়া চিকিৎসক। এখনো তিনি কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। দেখার শক্তি ফিরে পাওয়ার জন্য পাহাড়-পর্বত ডিঙিয়ে, নদী পার হয়ে দলে দলে মানুষ তার কাছে ছুটে আসে।
ছানি অস্ত্রোপচারের এক দিন পর তিনি ব্র্যান্ডেজ খুলে ফেলেন। তারা আবার দেখতে পায়। প্রথমে একটু সংশয়পূর্ণভাবে, পরে উল্লসিত মেজাজে। কয়েক ঘণ্টা পর তারা বাড়ির পথে চলতে শুরু করে। এই ডাক্তারের নাম সানদুক রুইত। অন্ধত্বের বিরুদ্ধে লড়াইতে তিনি বিশ্বচ্যাম্পিয়ন।
বিশ্বজুড়ে প্রায় ৩৯ মিলিয়ন লোক অন্ধ। এদের মধ্যে ২৪৬ মিলিয়ন লোক ছানির সমস্যায় ভুগছে। এই রোগের চিকিৎসা খুব কঠিন নয়। তবে গরিব দেশগুলোতে এটা বড় একটা সমস্যা। যে পয়সা দরকার, তা এসব দেশের অনেকের থাকে না।
এই অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটাতে সানদুক নতুন একটি উপায় উদ্ভাবন করেছেন। মাত্র ২৫ ডলারে দৃষ্টিশক্তি পাওয়া সম্ভব। এটাকে যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসা স্কুলগুলোতে বলা হচ্ছে ‌’নেপাল মডেল’। খুব কম সময়ে অত্যাধুনিক উপায়েই অস্ত্রোপচার করা হয় এতে। ডা. সানদুক ছানি কেটে খুব দ্রুততার সাথে লেন্স লাগিয়ে দেন। এই কাজে মাইক্রোসকোপের সহায়তা নেন।
যুক্তরাষ্ট্রে যে জটিল পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়, তা তিনি এড়িয়ে যান। প্রথমে অনেক চিকিৎসক তার প্রতি বিরূপ মন্তব্য করেছিলেন। কিন্তু সফলতার পর এখন তার কাজকে সবাই স্বীকৃতি দিচ্ছে।
তারা খুব কম দামে লেন্সও তৈরি করেন। তারা যে লেন্স ব্যবহার করেন, সেটির দাম মাত্র ৩ ডলার, আর পাশ্চাত্যে ব্যবহার করা হয় ২০০ ডলার দামের লেন্স। কম দাম বলে জিনিসটা খারাপ তা কিন্তু নয়। মানসম্পন্ন বলে ৫০টি দেশে তা রফতানি হচ্ছে, ইউরোপের কোনো দেশেও তা যাচ্ছে। এতে করে খরচ কমে যাচ্ছে। ডা. সানদুক (৬১) নেপালের প্রত্যন্ত একটি এলাকায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন।
সূত্র : ডেইলি সাবাহ

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close