নীলফামারী

পলাতক আসামীদের ধরতে সৈয়দপুর থানা পুলিশের গণবিজ্ঞপ্তি জারি

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর থেকে: আদালত থেকে পরোয়ানা হওয়া শতাধিক সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামীর হদিস পাচ্ছেনা সৈয়দপুর থানা পুলিশ। পলাতক এসব আসামীদের মধ্যে দু একজনকে গ্রেফতার করতে পারলেও বাকিরা পলাতক থাকায় তাদের গ্রেফতার করতে পারছেনা তারা। ফলে পলাতক ওইসব আসামীদের গ্রেফতারে সহযোগিতা করতে সৈয়দপুর থানা পুলিশ গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছে।
নীলফামারী জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় সম্প্রতি ওই গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। থানা পুলিশ জানায় নীলফামারীসহ বিভিন্ন আদালতে ১২১ জন আসামীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড ও জরিমানার রায় ঘোষণা করা হয়। এরমধ্যে নীলফামারী আদালতের মামলার সংখ্যা অনেক বেশী। আদালত ওইসব আসামীদের অনুপস্থিতেই রায় ঘোষণা করেন। ওইসব আসামীদের বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতি, মাদক চুরি,ডাকাতি, নারী নির্যাতন, মারামারিসহ অন্যান্য অভিযোগে থানা ও আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। সুত্র জানায়,মামলার পর ওইসব আসামীরা জামিনে মুক্ত থাকলেও রায়ের সময় তারা আদালতে অনুপস্থিত ছিল। রায়ে আদালত বিভিন্ন ধারায় দন্ডিত করে কারাদন্ড ও জরিমানা করেন। সুত্রটি জানায়,ওইসব পলাতক আসামীদের মধ্যে ব্যবসায়ী,
চাকুরীজিবীসহ সমাজের অনেক নামিদামী ব্যক্তিবর্গও রয়েছেন। এসবের মধ্যে প্রায় ৩০ বছর আগের মামলাও রয়েছে। সুত্র জানায়,বিভিন্ন সময় আদালত রায় ঘোষনার সাথে সাথে দন্ডপ্রাপ্ত আসামিদের গ্রেফতার করতে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। ওই পরোয়ানা থানায় এলে পুলিশ তাদের আইনের আওতায় আনতে সম্ভাব্য সকল স্থানে অভিযান চালায়। এরমধ্যে দু চারজনকে পুলিশ গ্রেফতারে সক্ষম হলেও অন্যান্যরা পলাতক থাকায় তাদের হদিস বের করতে পারছেনা। দীর্ঘদিনের জমে থাকা পলাতক আসামিদের তালিকা বাড়তে থাকায় থানা পুলিশ সাজাপ্রাপ্ত ওইসব আসামিদের ধরতে সোর্সও নিয়োগ করে। কিন্তু তাতেও তেমন ফলাফল না মেলায় গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে সৈয়দপুর থানা পুলিশ। শহরের প্রতিটি গুরুত্বপুর্ণ মোড়ে দেয়ালে লাগানো ওই গণবিজ্ঞপ্তিতে দেখা যায়
১৯৮৯ সাল থেকে শুরু করে ২০১৯ সাল পর্যন্ত আদালত ও থানায় দায়ের হওয়া মামলায় বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রাপ্ত ১১১ জনের নাম রয়েছে। এদের মধ্যে ৯০ জন সৈয়দপুর পৌর এলাকা ও বাকি ২১ জনের ঠিকানা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে।
তালিকায় অনেক আসামির ঠিকানা অসম্পুর্ণ রয়েছে। ইউনিয়নগুলোর মধ্যে কামারপুকুরে ৫ জন,
কাশিরাম বেলপুকুরে ৪ জন, বাঙ্গালীপুরে ৫ জন,
বোতলাগাড়িতে ৬ জন ও খাতামধুপুর ইউনিয়নে ১ জন রয়েছে। দন্ডপ্রাপ্ত আসামিদের গ্রেফতারে সহযোগিতা প্রদানে গণবিজ্ঞপ্তি জারি প্রসঙ্গে জানতে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হাসনাত খানের সাথে কথা হলে তিনি বলেন,পলাতক সাজাপ্রাপ্ত আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ প্রতিদিনই বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে। কিন্তু তারা পলাতক থাকায় এবং অনেকের ঠিকানা অসম্পুর্ণ থাকায় তাদের গ্রেফতার করা যাচ্ছেনা। তিনি বলেন পলাতক আসামি দেশের বিভিন্ন এলাকায় আত্মগোপন করে আছেন। ফলে তাদের অবস্থান জানতে এবং গ্রেফতারে সাধারন জনতার সহযোগিতা চেয়ে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। তিনি ওইসব আসামিদের ব্যাপারে তথ্য চেয়ে সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। সংবাদদাতাদের পরিচয় গোপন রাখা হবে বলে তিনি নিশ্চয়তা দিয়েছেন।

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- সম্পাদক

Related Articles

Back to top button
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker