আন্তর্জাতিক

পাকিস্তানের বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ে তীব্র গোলাগুলি : ২১ জন নিহত

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2016/01/124.jpg
বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি দৃশ্য

তিস্তা নিউজ ওয়েব ডেস্ক: পাকিস্তানের বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ে আজ বুধবার সকালে অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের হামলায় অন্তত ২১ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়ে আহত হয়েছে অন্তত অর্ধশত শিক্ষার্থী।

নিহতদের মধ্যে রয়েছেন রসায়নের প্রফেসর ড. হামিদ ও দু’জন ছাত্র।

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2016/01/98.jpg
ডাঃ সৈয়দ হামিদ হোসেন, হামলায় নিহত হন একজন সহকারী অধ্যাপক

বিশ্ববিদ্যালয়টির ভিতরে তীব্র গোলাগুলির শব্দ পাওয়া যাচ্ছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, তারা বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শুনতে পেয়েছেন।

পাকিস্তানের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলে খাইবার পখতুনখাওয়ার চারসাদ্দা শহরে এই বিশ্ববিদ্যালয়টি অবস্থিত।

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2016/01/113.jpg
বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে নিরাপত্তা কর্মীদের অবস্থান

হামলাকারীদের ৮ থেকে ১০ জন এখনও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে অবস্থান করছে। সেখানে নিরাপত্তা রক্ষীদের উপস্থিতির ছবিও প্রচার করছে এই টেলিভিশন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতর থেকে এক নারী ফোনে বলেছেন, এখনও সেখানে তীব্র গুলি হচ্ছে। তিনি সাহায্য চেয়ে চিৎকার করছেন। তবে কারা কি উদ্দেশে এ হামলা চালাচ্ছে তা জানা যায় নি।

উল্লেখ্য, এই বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় ৩ হাজার শিক্ষার্থী পড়াশোনা করেন। এর আগে নিরাপত্তা রক্ষীরা আশপাশের এলাকায় তল্লাশি অভিযান চালায়। এ সময়ে আটক করা হয় চার জনকে। উদ্ধার করা হয়েছে পুলিশের পোশাক।

এদিকে ঘটনার পর পরই হামলাকারীদের সনাক্তসহ পুরো ঘটনা নজরদারি করার জন্য পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার আকাশ থেকে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে।

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2016/01/80.png
পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার আকাশ থেকে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে।

সেনাবাহিনীর সূত্র জানিয়েছে হামলায় চার হামলাকারী নিহত হয়েছে। রেসকিউ ১১২২ বিভিন্ন স্থান থেকে ৭০ জনের বেশি শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করেছে। ইমরান খানের পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ (পিটিআই) প্রতিনিধি শওকত ইউসুফজাই বলেন, কমপক্ষে ৫০ থেকে ৬০ জন আহত হয়েছে এ হামলায়। আহত হয়েছেন ৪ নিরাপত্তা রক্ষী। ডিআইজি সাঈদ ওয়াজির বলেন, সব হোস্টেল থেকে শিক্ষার্থীদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থানে এখনও লুকিয়ে আছে হামলাকারীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে এখনও আটকে আছে অনেক শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা, কর্মচারী।

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2016/01/78.png
এক আহত ব্যক্তির বাচা খান বিশ্ববিদ্যালয়ের থেকে উদ্ধার করা হচ্ছে।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উদ্ধার হওয়া এক প্রত্যক্ষদর্শ বলেছেন, হামলাকারীরা প্রবেশ পথগুলোতে অবস্থান নিয়েছে। তিনি বলেন, আমি তিন হামলাকারীকে নিরাপত্তা রক্ষীদের সঙ্গে গুলি বিনিময় করতে দেখেছি। একজন একটি ছাদে অবস্থান নিয়েছে। আরেকজন এক কর্নারে। তৃতীয় জন অবস্থান নিয়েছে একটি দেয়ালের কাছে। তাদের দলের অন্যরা ক্যাম্পাসের বিভিন্ন ভবনের দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলায় অবস্থান নিয়েছে। পুরো পরিস্থিতি আকাশ থেকে হেলিকপ্টারে পর্যবেক্ষন করা হচ্ছে। তথ্য সূত্র: অনলাইন ডন

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close