আন্তর্জাতিক

ভিক্ষা চাওয়ায় বালককে মন্ত্রীর লাথি।

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2015/11/6969.jpg
ভিক্ষা চাওয়ায় বালককে মন্ত্রীর লাথি।

ইন্টারনেট ডেস্ক : ভিক্ষা চেয়ে জুটল মন্ত্রীর লাথি! এখানেই শেষ নয়। মন্ত্রীর পা না ছাড়ায় ১৪ বছরের কিশোরের বেধড়ক মার নিরাপত্তারক্ষীদের!

শিউড়ে ওঠার মতো এ ছবি বিজেপি-শাসিত মধ্যপ্রদেশের! আবারও বিতর্কে শিবরাজ সিংহ চৌহান মন্ত্রিসভার সদস্য কুসুম মেহদেলে।

রোববার ছিল মধ্যপ্রদেশের প্রতিষ্ঠা দিবস। পান্না এলাকার একটি বাসস্ট্যান্ডে স্বচ্ছতা অভিযান পরিদর্শনে যান বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশের প্রাণী সম্পদ বিকাশ মন্ত্রী কুসুম মেহেদেলে। অভিযোগ, অনুষ্ঠান শেষে কুসুম যখন গাড়িতে উঠতে যাবেন, সেইসময় ১৪ বছরের এক কিশোর মন্ত্রীর পা ধরে ভিক্ষে চায়। আর তারপরই বালককে সামনে থেকে সরাতে সরাসরি লাথি মারেন প্রবীণ এই মন্ত্রী!

তাতেও কাজ না হওয়ায় আসরে নামেন মন্ত্রীর নিরাপত্তারক্ষীরা। প্রথমে মার। পরে ওই বালককে টেনে হিঁচড়ে সরিয়ে ভিভিআইপিকে গাড়িতে তুলে দেন তাঁরা।

ঘটনায় স্তম্ভিত হয়ে যান স্থানীয়রা। যদিও কোনও হেলদোলই ছিল না মধ্যপ্রদেশের এই মন্ত্রীর। সাংবাদিকদের এড়িয়ে সটান গাড়িতে উঠে এলাকা ছাড়েন তিনি।

পরেও এই ঘটনা নিয়ে মুখ খুলতে চাননি তিনি। মুখে কুলুপ এঁটেছে তাঁর দল বিজেপিও। মধ্যপ্রদেশের প্রাণী সম্পদ বিকাশ মন্ত্রীর লাথি মারার এই ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ্যে আসতেই দেশজুড়ে তোলপাড় পড়ে গিয়েছে। কুসুম মেহদেলের পদত্যাগের দাবিতে সরব একাধিক মানবাধিকার সংগঠন।

যদিও এটাই প্রথম নয়। এর আগেও একাধিকবার নিজের কীর্তির জেরে শিরোনামে এসেছেন শিবরাজ সিংহ চৌহানের এই মন্ত্রী। কখনও পশুখামারে মশার কামড়ের জেরে আধিকারিকদের দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন, কখনও বাঘ, সিংহের মতো প্রাণীকে গৃহপালিত করার কথা বলে বন দফতরকে আইন আনার প্রস্তাব দিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন। এবার আর পশু নয়, এক টাকা ভিক্ষে চাওয়ার অপরাধে ১৪ বছরের এক কিশোরকে লাথি!

তথ্যসূত্র: “দৈনিক নয়া দিগন্ত”

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close