Featured

মস্কোর কবরস্থানে ওয়াই ফাই সংযোগ

তিস্তা নিউজ আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাশিয়ার তিনটি বিখ্যাত কবরস্থান ডিজিটাল যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। ওই তিনটি কবরস্থানে বসানো হচ্ছে ওয়াই ফাই।http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2015/12/11.jpg

ওই তিনটি গোরস্থানে যারা তাদের আত্মীয় স্বজন বা বন্ধু বান্ধবদের কবর পরিদর্শন করতে যান তারা সেখানে বিনা খরচায় ইন্টারনেটে ব্রাউজ করতে পারবেন।

কর্তৃপক্ষ বলছে, আগামী বছরের মাঝামাঝি সময় থেকে এই তিনটি কবরস্থানে ওয়াই ফাই সংযোগ স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মস্কো সিটি ওয়েবসাইট থেকে এই খবরটি দিয়েছে বিবিসি মনিটরিং। শহরের কবরস্থানগুলোর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরটেম ইয়েকিমভ বলেছেন, এই তিনটি কবরস্থানে যেসব বিখ্যাত লোকজনকে দাফন করা হয়েছে লোকজন যাতে তাদের সম্পর্কে জানতে পারেন, কার কবর কোথায় সেটা খুঁজে বের করতে পারেন সেই লক্ষ্যে এই সিদ্ধান্ত।

“লোকজন যাতে আরো বেশি করে এসব কবরস্থানে আসেন এবং সেটা যাতে তাদের জন্যে আনন্দদায়ক হয় সেজন্যেই বিনা খরচায় ইন্টারনেট সেবা দেওয়া হবে।” বলেন তিনি। এবিষয়ে একটি জরিপও চালানো হয়েছে।http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2015/12/111.jpg

জরিপে দেখা গেছে, কবরস্থানগুলোতে ওয়াই ফাই না থাকায় অনেকেই সেখানে যেতে চায় না।

যে টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান ওয়াই ফাই সংযোগ স্থাপনের কাজটি করবে তার প্রধান বলেছেন, “নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই অত্যন্ত স্পশর্কাতর এই কাজটি আমরা করবো।”

মস্কোর এই তিনটি কবরস্থান খুবই জনপ্রিয়। সবচে বেশি জনপ্রিয় নভোদেভিচি নামের একটি গোরস্থান। পর্যটকদের জন্যেও এটি অত্যন্ত আকর্ষণীয় জায়গা।

এই গোরস্থানে যেসব বিখ্যাত লোকজনদের সমাধিস্থ করা হয়েছে তাদের মধ্যে আছেন লেখক আন্তন চেখভ, সাবেক সোভিয়েত নেতা নিকিতা ক্রুশ্চেভ এবং রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়েলৎসিন।

আরেকটি গোরস্থান ট্রয়েকুরোভস্কিতে খুবই সম্প্রতি দাফন করা হয়েছে বিরোধী নেতা বরিস নেমসভকে। আততায়ীদের গুলিতে এবছরেরই ফেব্রুয়ারি মাসে নিহত হন বরিস নেমসভ। খবর: বিবিসি

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close