Featured

রংপুর বিভাগের ২০টি পৌরসভা নির্বাচনে ১২৮ জন মেয়র প্রার্থী

নীলফামারী অফিস : প্রথম দফায় আগামী ৩০ ডিসেম্বর রংপুর বিভাগের ২০টি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। মনোনয়নপত্র জমা ও যাচাই বাছাই শেষে দেখা যায় এই বিভাগের আট জেলায় মেয়র প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২৮ জনে।http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2015/12/Untitled-18.jpg এ ছাড়া  ৯০৯ জন কাউন্সিলর, ২৮৭ জন সংরতি নারী কাউন্সিলর রয়েছে প্রার্থী হিসাবে। গত শনিবার ও রবিবার রংপুরের আট জেলায় পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, নীলফামারী, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, রংপুর ও গাইবান্ধা  মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাই শেষে বিভিন্ন কারণে এসব জেলায় ৮ জন মেয়র প্রার্থীর ও ৫৪ জন ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং ১৬ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলরের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়। এসব মনোনয়ন বাতিলের পর ওই সংখ্যক প্রার্থী রয়েছে মাঠে। আগামী ১৩ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের দিন। এরপর বোঝা যাবে কারা নির্বাচনের মাঠে থাকবে। নি¤েœ জেলা অনুযায়ী প্রার্থীদের সংখ্যা তুলে ধরা হলো।
নীলফামারীঃ- নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে ৭ জন, কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ৭৭ জন এবং নারী কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ২০ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন।  যাচাই বাছাইয়ে ৩ জন মেয়র প্রার্থী, একজন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং দুইজন সংরতি নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছে উপজেলা রিটার্নিং অফিসার।এই জেলার জলঢাকা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে ৭ জন, কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ৪৬ জন এবং নারী কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ১৫ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। যাচাই বাছাই শেষে দুইজন কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছে উপজেলা রিটার্নিং অফিসার। বাকিদের প্রার্থিতা বহাল রয়েছে।
রংপুরঃ জেলার বদরগঞ্জ পৌরসভায় ৬ জন মেয়র পদে মনোনয়ন দাখিল করেন। ৩১ জন কাউন্সিল মনোনয়ন দাখিল করলে রোববার ৫ জনের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া ১৫ জন নারী কাউন্সিল মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন।
গাইবান্ধা : গাইবান্ধা সদরে ৮ জন মেয়র, ৭৩ জন কাউন্সিলর এবং ২২ জন নারী কাউন্সিলর, সুন্দরগঞ্জে মেয়র ৯, কাউন্সিলর ৩০ এবং ১৩ জন নারী কাউন্সিল, গোবিন্দগঞ্জে ৮ জন মেয়র, ৩৭ জন কাউন্সিলর এবং ১৬ জন নারী কাউন্সিলর প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। এরমধ্যে গোবিন্দগঞ্জে ২ কাউন্সিলর এবং সুন্দরগঞ্জে ২ জন নারী কাউন্সিলরের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছেন।
লালমনিরহাট : লালমনিরহাট সদরে ৬ জন মেয়র, ৫৩ জন কাউন্সিলর এবং ১৫ জন নারী কাউন্সিলর মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। এরমধ্যে ২ জন কাউন্সিলরের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। অন্যদিকে এ জেলার পাটগ্রাম পৌরসভায় ৪ জন মেয়র, ৩৩ জন কাউন্সিলর এবং ৯ জন নারী কাউন্সিলর মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। সবার মনোনয়ন বহাল রয়েছে।
পঞ্চগড় : পঞ্চগড় সদর পৌরসভায় মেয়র পদে চারজন, কাউন্সিলর পদে ৩৬ এবং সংরতি নারী কাউন্সিলর পদে ৩৬ জন মনোয়ন পত্র দাখিল করেন। যাচাই বাছাই শেষে একজন মেয়র, ৭ জন কাউন্সিলর এবং ৩ জন সংরতি নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করেছে জেলা রিটার্নিং অফিসার।
ঠাকুরগাঁও : ঠাকুরগাঁও সদর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে ৬ জন, কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ৫৩ জন এবং নারী কাউন্সিলর হিসেবে ১৬ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। এর মধ্যে গত রোববার যাচাই বাছাই শেষে ১৩ জন কাউন্সিলর এবং একজন সংরতি নারী কাউন্সিলরের মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছে জেলা রিটার্নিং অফিসার। এই  জেলার পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে ৫ জন, কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ৪১ জন এবং নারী কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ১০ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। রোববার যাচাই বাছাই শেষে ৩ জন কাউন্সিলর প্রার্থী এবং একজন সংরতি নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছে উপজেলা রিটার্নিং অফিসার। এই জেলার রাণীশংকৈল পৌরসভায় মেয়র প্রার্থী হিসেবে ৬ জন, কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ৩০ জন এবং নারী কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে ১১ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেন। রোববার যাচাই বাছাইয়ের পর সকল প্রার্থীর প্রার্থিতা বহাল রয়েছে।
দিনাজপুরঃ দিনাজপুর সদর পৌরসভায় মেয়র পদে পাঁচজন, কাউন্সিলর পদে ৬২ এবং সংরতি নারী কাউন্সিলর পদে ২১ জন মনোয়ন পত্র দাখিল করেন। গত দুই দিন (শনিবার ও রোববার) যাচাই বাছাইয়ের পর সংরতি একজন নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করেছে জেলা রিটার্নিং অফিসার। এই জেলার  বীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আটজন, কাউন্সিলর পদে ৩৭ এবং সংরতি নারী কাউন্সিলর পদে ১১ জন মনোয়ন পত্র দাখিল করেন। রোববার যাচাই বাছাইয়ের পর দুইজন মেয়র প্রার্থী ও ১১ জন সংরতি নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করেছে উপজেলা রিটার্নিং অফিসার। এই জেলার  হাকিমপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে চারজন, কাউন্সিলর পদে ৩৫ এবং সংরতি নারী কাউন্সিলর পদে ৮ জন মনোয়ন পত্র দাখিল করেন। রোববার যাচাই বাছাইয়ের পর একজন কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করেছে উপজেলা রিটার্নিং অফিসার।
এই জেলার  বিরামপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ৬ জন, কাউন্সিলর পদে ৪৪ এবং সংরতি নারী কাউন্সিলর পদে ৯ জন মনোয়ন পত্র দাখিল করেন। রোববার যাচাই বাছাইয়ের পর একজন সংরতি নারী কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করে উপজেলা রিটার্নিং অফিসার। এই জেলার ফুলবাড়ি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে ১০ জন, কাউন্সিলর পদে ৪৫ এবং সংরতি নারী কাউন্সিলর পদে ১০ জন মনোয়ন পত্র দাখিল করেন। তবে এ উপজেলায় ৭ জন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী নির্বাচন করছেন। রোববার যাচাই বাছাইয়ের পর একজন কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করে উপজেলা রিটার্নিং অফিসার।
কুড়িগ্রামঃ কুড়িগ্রামের ৩টি পৌরসভা নির্বাচন হচ্ছে। কুড়িগ্রাম সদর পৌরসভায় ৫ জন, নাগেশ্বরী পৌরসভায় ৬ জন এবং উলিপুর পৌরসভায় ৮ জন মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন বহাল রয়েছে। এর মধ্যে উলিপুর পৌরসভায় ২ জন মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করেছে রিটার্নিং অফিসার।
এদিকে কুড়িগ্রাম সদর পৌরসভায় কাউন্সিলর ৪৫, নাগেশ্বরীতে ৫০ এবং উলিপুরে ৫১ জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র দাখিল করে। এরমধ্যে কুড়িগ্রাম সদর পৌরসভায় ৯ এবং উলিপুরে ৫ জনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। এ তিন পৌরসভায় ৪৬ জন নারী কাউন্সিলর মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছে। এরমধ্যে কুড়িগ্রামে ৩ জন এবং উলিপুরে একজনের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close