নীলফামারী

সরকারি নির্দেশনা মানতে সৈয়দপুরে দোকান ও জনসমাগম বন্ধ করতে প্রশাসন মাঠে

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা অমান্যকারীসহ সৈয়দপুরে জনসমাগম তথা জটলা প্রতিরোধে প্রশাসন মাঠে নেমেছে।
গত বুধবার সকাল থেকে উপজেলা প্রশাসন ও থানা প্রশাসন সম্মিলিতভাবে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ও ব্যবসা কেন্দ্রগুলোতে অভিযান চালায়। এ সময় ওষুধের দোকান, মুদি দোকান ও কাঁচা বাজার, সবজির দোকান ব্যতিত অন্যান্য যেসব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছিল তা বন্ধ করে দেয়। সে সাথে রাস্তায় চলাচলকারী পথচারীসহ মোড়ে মোড়ে অবস্থানরত একের অধিক মানুষকে ছত্রভঙ্গ করে নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থানের জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়। এতে পুরো শহর ফাঁকা হয়ে যায়।
আজ বৃহস্পতিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাসিম আহমেদ, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার ও থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হাসনাত খানের সমন্বয়ে মাঠে ছিল প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। গত কয়েকদিন থেকে সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে সৈয়দপুর শহরের প্রায় প্রতিটি এলাকায় সব ধরণের দোকানপাট খোলা রাখা হয়েছিল। মানুষজনও দলে দলে বের হয়ে বাজার, রাস্তার মোড়সহ বিভিন্ন স্থানে জটলা করে অবস্থান করছিল। এ নিয়ে সচেতন ব্যক্তিরা বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের পদক্ষেপ দাবি করে সোস্যাল মিডিয়ায় সোচ্চার হয়ে উঠে। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রশাসন লোকজনকে সরাতে মাঠে নামে।
এ ব্যাপারে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাসিম আহমেদ জানান, সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দোকানপাট বন্ধ থাকবে এবং জনসমাগম করা যাবে না। শুধু ওষুধ, মুদি ও কাঁচা তরিতরকারির দোকান খোলা থাকবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ আদেশ বলবৎ থাকবে। তিনি সৈয়দপুরবাসীকে এ নির্দেশনা মেনে যথানিয়মে ঘরে অবস্থানের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসাধারণের সহযোগিতা কামনা করেন।

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close