নীলফামারী

সৈয়দপুরে এসএমইডিপি-২ প্রকল্পের আওতায় নারী উদ্যোক্তা-ব্যাংকারদের সেমিনার অনুষ্ঠিত

মিজানুর রহমান মিলন,সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর সৈয়দপুরে সেকেন্ড স্মল এন্ড মিডিয়াম সাইজড এন্টারপ্রাইজ ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের (এসএমইডিপি-২) আওতায় নারী উদ্যোক্তা – ব্যাংকারদের নিয়ে দিনব্যাপী এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ (শনিবার) বাংলাদেশ ব্যাংকের উদ্যোগে সৈয়দপুর শহরের বিমানবন্দর সড়কের ইকু হেরিটেজ হোটেল ও রিসোর্টের কনফারেন্স রুমে ওই সেমিনারে আয়োজন করা হয়।

সেমিনারে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংক এর প্রধান কার্যালয়ের নির্বাহী পরিচালক জোয়ারদার ইসরাইল হোসেন। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রকল্পের নারী উদ্যোক্তা উন্নয়ন বিষয়ক পরামর্শক মো. আক্তারুজ্জামান।
বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের যুগ্ম পরিচালক মো. তারিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে নারী উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন সৈয়দপুরের বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা আহমেদা ইয়াসমিন ইলা। সেমিনারটি সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের উপ-পরিচালক বিধান সাহা। দিনব্যাপী সেমিনারে রংপুর অঞ্চলের ৫০ জন নারী উদ্যোক্তা ও ব্যাংকার অংশ নেয়।
সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংক এর প্রধান কার্যালয়ের নির্বাহী পরিচালক জোয়ারদার ইসরাইল হোসেন বলেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি সারা বিশ্বের বিস্ময়; যা বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। আর এই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির মূল চালিকা শক্তিই হচ্ছে কুটির, মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারী খাত (সিএমএসএমই)। সারা বাংলাদেশের ব্যবসা ও শিল্প প্রতিষ্ঠানের শতকরা ৯০ শতাংশই এ খাতের আওতাভুক্ত। বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকই নারী। তাই নারী উদ্যেক্তাদেরকে অর্থনীতির মূল ধারায় না আনা গেলে কখনই টেকসই উন্নয়ন সম্ভব হবে না। তাই মুজিববর্ষের এই ক্ষণে বর্তমান সরকার প্রতিশ্রুত নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নারীদের আর্থিক অন্তর্ভুক্তি তরান্বিতকরণে সক্রিয়া ভূমিকা রাখার জন্য ব্যাংকারদেরকে প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
সভাপতির বক্তব্যে মো. তারিকুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি ব্যাংক শাখাকে প্রতি বছর কমপক্ষে তিনজন করে নারী উদ্যোক্তা খুঁজে বের করে অন্ততঃ এক জন নারী উদ্যোক্তাকে ঋণ প্রদান করার বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। আর স্বল্প সুদে ঋণ গ্রহণের এই সুবিধা এ অঞ্চলের উদ্যোক্তাদেরকে পৌাঁছে দেওয়ার জন্য স্থানীয় ব্যাংকারদের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি ।
সম্মেলনে বাংলাদেশ ব্যাংকের উপ-পরিচালক বিধান সাহা নারী উদ্যোক্তা অর্থায়নে বাংলাদেশ ব্যাংকের গৃহীত পদক্ষেপ, বিভিন্ন নীতিমালা ও এসএমইডিপি-২ প্রকল্পের লক্ষ্য উদ্দেশ্য এবং প্রকল্পের আওতায় ঋণ গ্রহণের নিয়মাবলী তুলে ধরেন।
বিধান সাহা বলেন, এডিবি ও বাংলাদেশ সরকারের যৌথ অর্থায়নে গঠিত এ তহবিলের আকার প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা। এ তহবিলের আওতায় ঢাকা ও চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটান এলাকার বাইরে সারা বাংলাদেশে এসএমই খাতে ঋণ গ্রহনের সুযোগ রয়েছে। নারী উদ্যোক্তাদেরকে এ তহবিল থেকে সর্বোচ্চ নয় শতাংশ সুদে ঋণ বিতরণ করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত সারা দেশে এক হাজার ৮৫৭টি ক্ষুদ্র ও মাঝারী প্রতিষ্ঠানকে আট শত কোটি টাকা পুনঃঅর্থায়ন করা হয়েছে। এ তহবিলের আওতায় কটেজ, মাইক্রো, ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ক্ষেত্রে ঋণের সর্বোচ্চ সীমা এক কোটি টাকা এবং মাঝারি উদ্যোক্তাদের ক্ষেত্রে ঋণের সর্বোচ্চ সীমা তিন কোটি টাকা। নারী উদ্যোক্তা উন্নয়ন বিষয়ক পরামর্শক মো. আক্তারুজ্জামান বলেন, এ প্রকল্পের আওতায় রপ্তানি বাণিজ্যের সাথে সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশের বিসিক এস্টেট ও এসএমই ক্লাস্টার এবং স্থানীয় ব্যবসা উন্নয়ন সার্ভিস প্রোভাইডারদের সাথে সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে উদ্যোক্তাদের উন্নয়ন সাধনের লক্ষ্যে চারজনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে এবং দুইটি Cluster Facility Centre করা হবে। এছাড়া আর্থিক ব্যবস্থাপনা ও ব্যবসায়িক এবং আইনি বিষয়ক শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে গ্রামাঞ্চলের উদ্যোক্তা বিশেষ করে কটেজ,মাইক্রো ও নারী উদ্যোক্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য চারশত জন নারী উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে।

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close