Featured

সৈয়দপুরে ভেজাল সার ব্যবসায়ীকে লাখ টাকা জরিমানা

http://tistanews24.com/wp-content/uploads/2015/11/index2.jpgবিশেষ প্রতিনিধি:  নিয়মিত মামলা না করে এক প্রভাবশালী ভেজাল সার তৈরীর ফ্যাক্টরীর মালিককে জরিমানার মাধ্যমে ছেড়ে দেয়া নিয়ে অভিযোগ উঠেছে। নীলফামারীর সৈয়দপুরে প্রতিষ্ঠিত একটি জৈব সার কারখানার মোড়ক ব্যবহার করে ভেজাল সার বিক্রি করায় প্রভাবশালী আব্দুল মান্নান নামে ওই ভেজাল সার ব্যবসায়ীকে এক লাখ টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
শনিবার সকালে দোষ স্বীকার এবং ভেজাল সার বিক্রি না করার অঙ্গীকার করে এক লাখ টাকা জরিমানা দিয়ে রেহাই পান তিনি। এর আগে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক আবু ছলেহ মো. মুসা জঙ্গী সার ব্যবস্থাপনা আইন-২০০৬ সালের ১৬ ধারায় ওই ব্যবসায়ীকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেন।
সাধারন কৃষক সহ এলাকাবাসীর অভিযোগ ওই ভেজাল সার তৈরীর ফ্যাক্টরীর প্রভাবশালী মালিক আব্দুল মান্নানকে নিয়মিত মামলা থেকে বাঁচাতে ক্ষমতাসীন দলের বেশ কিছু নেতা তদবির চালিয়ে তাকে জরিমানা প্রদান করার ব্যবস্থা করলে তিনি রক্ষা পায়। অথচ তার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা রুজু হবার কথা ছিল।
অভিযোগ মতে গত ১৯ নবেম্বর সন্ধ্যায় নীলফামারীর সৈয়দপুর বিসিক শিল্প নগরীর এ-৬৪ এবং এ-৬৫ নম্বর প্লটে অবস্থিত ওই নকল জৈব সার কারখানার  সিলগালা করে বন্ধ করে দিয়েছিল প্রশাসন। এর আগে সেখান থেকে সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নেতৃত্বে উপজেলা কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা ও থানা পুলিশের উপস্থিতিতে  ৫০ বস্তা নকল গ্রামীণ শক্তি জৈব সার, ৯ বস্তা সোডিয়াম সালফেট সারসহ নকল সার তৈরির নানা উপকরণ ও মালামাল জব্দ করে থানা নিয়ে আসা হয়েছিল।  এলাকাবাসী জানায় ওই কারখানার প্লটটি জনৈক রুবেলের। কিন্তু এটি পরিচালনা করেন প্রভাবশালী ভেজাল সার ব্যবসায়ী আব্দুল মান্নান। সুত্র মতে প্রভাবশালী আব্দুল মান্নান  ১/১১ সময় একই কারনে গ্রেফতার হয়েছিলেন।

Show More

News Desk

তিস্তা নিউজের নিউজ রুম থেকে সমস্ত বিভাগসহ বাংলাদেশের সর্বশেষ সংবাদ প্রকাশ করা হয়। আপনি যদি তিস্তানিউজ ২৪.কম এ প্রকাশের জন্য আমাদের ট্রেন্ডিং নিউজ প্রেরণ করতে চান তবে আসুন এখনই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আপনার নিউজটি আমাদের নিউজ রুম থেকে নিউজ ডেস্ক হিসাবে প্রকাশিত হবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদান্তে- আব্দুল লতিফ খান, সম্পাদক মন্ডলির সভাপতি।

Related Articles

Back to top button
Close